IQNA

20:44 - July 16, 2019
সংবাদ: 2608907
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, সম্প্রতি পরমাণু সমঝোতা জেসিপিওএ'র কিছু প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন স্থগিত করা হয়েছে এবং নিশ্চিতভাবে এই প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।

পার্সটুডের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: তিনি আজ তেহরানে দেশের জুমার নামাজের খতিবদের এক সমাবেশে এ কথা বলেছেন। সর্বোচ্চ নেতা বলেন, পাশ্চাত্য নিজেকে বড় করে দেখছে, এ কারণে তারা বাস্তবতা উপলব্ধি করতে পারছে না।

তিনি আরো বলেছেন, তাদের এই আত্মম্ভরিতা ও অহংকার দুর্বল দেশ ও জাতিগুলোর মোকাবিলায় সাফল্য এনে দিলেও সাহসী ও অধিকার-সচেতন দেশ ও জাতির সামনে তা ব্যর্থ হবে। সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন ইউরোপ পরমাণু সমঝোতায় ইরানকে ১১টি প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, কিন্তু তারা এর একটিও বাস্তবায়ন করে নি।

কিন্তু ইরান পরমাণু সমঝোতায় দেওয়া সব প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করেছে এমনকি প্রতিশ্রুতির চেয়েও বেশি কাজ করেছে। এখন ইরান পাশ্চাত্যের আচরণের কারণে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন কমিয়ে দিয়েছে। এরপর ইউরোপীয়রা এখন এমন ভাব দেখাচ্ছে যে উল্টো আমরা তাদের কাছে ঋণী। তারা বলছে আমরা এটা কেন করছি। আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী ইউরোপীয়দের উদ্দেশে বলেন, আপনারা একটি প্রতিশ্রুতিও মেনে চলেন নি, এ অবস্থায় আপনারা কোন অধিকারে চাইছেন যে আমরা আমাদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি মেনে চলি।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা ইরানি তেল ট্যাংকার আটকের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, ব্রিটিশদের অপকর্ম সবার কাছে স্পষ্ট। এবার তারা জলদস্যুতার মাধ্যমে আমাদের তেল ট্যাংকার ছিনতাই করেছে। তেল ট্যাংকার ছিনতাইয়ের পর এখন তারা এই কাজকে বৈধ হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা করছে। তবে ইরানের ইসলামি শাসন ব্যবস্থা এটাকে বিনা জবাবে ছেড়ে দেবে না এবং উপযুক্ত সুযোগ-সময় মতো এর জবাব দেবে।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ইরাকের সাবেক প্রেসিডেন্ট সাদ্দামের চাপিয়ে দেয়া যুদ্ধের সময় বিজাতীয়দের চাপের কারণে ইরান প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে গৌরবোজ্জ্বল সক্ষমতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতিও অর্থনীতিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইরানের জন্য ইতিবাচক ফল বয়ে আনবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।  iqna

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: